আবারও দাম কমলো স্বর্ণের প্রতি ভরিতে কমেছে ১ হাজার ৫০ টাকা

করোনাকালে ইউক্রেনে চলমান রাশিয়ার সামরিক আগ্রাসনের মধ্যেই বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম বেড়ে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছায় গিয়েছিলো। এর প্রভাবে বাংলাদেশেও দ্বিতীয়বারের মতো মূল্যবান এই ধাতুর মূল্যবৃদ্ধির শঙ্কার কথা বলা হয়। তবে সোনার ভরিতে কমেছে ১ হাজার ৫০ টাকা।

আজ সোমবার স্বর্ণের নতুন দাম নির্ধারণের বিষয়টি বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি বাজুসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে সংগঠনটির মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ কমিটির চেয়ারম্যান এম এ হান্নান আজাদের সই করা একটি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে আগামীকাল মঙ্গলবার থেকেই কার্যকর হবে নতুন দাম।

বাজুসের তথ্যমতে, ভালো মানের স্বর্ণ ২২ ক্যারেটের সোনা ভরিপ্রতি বিক্রি হবে ৭৭ হাজার ৯৯ টাকায়, যা আগে ছিল ৭৮ হাজার ১৪৯ টাকা। অর্থাৎ প্রতি ভরিতে স্বর্ণের দাম কমেছে ১ হাজার ৫০ টাকা। ২১ ক্যারেট প্রতি ভরি ৭৩ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি হবে, যা আগে ছিল ৭৪ হাজার ৫৫০ টাকা। এ ক্ষেত্রে বেড়েছে ১ হাজার ৫০ টাকা।

১৮ ক্যারেট ভরিপ্রতি বিক্রি হবে ৭৩ হাজার ১০২ টাকা, যা আজও ছিল ৭৪ হাজার ৩৫ টাকা। এই সোনার ভরিতে বেড়েছে ৯৩৩ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির সোনা ৫২ হাজার ৬০৫ টাকায় বিক্রি হবে, যা ছিল ৫৩ হাজার ৩৬৩ টাকা। এ ক্ষেত্রে ভরিতে বেড়েছে ৭৫৮ টাকা।

এদিকে, আরেক মূল্যবান ধাতু রূপার দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। সে হিসাবে, ২২ ক্যারেটের রূপার ভরি বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার ৫১৬ টাকা, ২১ ক্যারেট ১ হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেট ১ হাজার ২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতিতে ৯৩৩ টাকা।

আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় বুনিয়ন বাজারে সোনার মূল্য কমেছে জানিয়ে বাজুস বলেছে, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে সোনা ও রূপার নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এর আগে গত ১৫ মার্চ সোনার ভরিতে ১ হাজার ১৬৬ টাকা ক‌মিয়েছিল সংগঠনটি।

আরো পড়ুনঃ   বিদেশ থেকে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর কয়েকটি মাধ্যম

প্রসঙ্গত, দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির পাশাপাশি দাম বেড়েছে তেল, গ্যাসের। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে স্বর্ণের দামও বাড়ানোর কথা জানানো হয় গত ৩ মার্চ। প্রতি ভরিতে ৩ হাজার ২৬৫ টাকা বাড়ানো হয়, যা দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ছিল।

Please Share This Article

Leave a Comment