E Service

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২২

আমাদের আজকের আলোচনায় আপনাদের সাথে বিস্তারিত ভাবে বলব জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম নিয়ে। আশা করি আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনারা অনেক উপক্রত হবেন।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম আছে কিনা এই বিষয় সম্পর্কে কিন্তু অনেক মানুষ আছে যারা জানার জন্য আগ্রহি সকলের স্মার্ট কার্ড কিংবা ভোটার আইডি কার্ড নেই, আপনাদের মধ্যে অনেকেই জানতে চেয়েছেন এনআইডি কার্ড ছাড়া কি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায় বা এনআইডি কার্ড ছাড়া বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম।

বা কিভাবে জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়াই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারা যায়। অনেকেই আছেন যারা বলে থাকেন যে ভাইয়া আমার তো ভোটার আইডি কার্ড নেই আমি কি আমার জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবো ?

অনেকেই আছেন যারা বলে থাকেন যে ভাই জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার উপায় আছে কোন যদি থাকে তাহলে আমাদের সঙ্গে শেয়ার করবেন। আর আপনাদের জন্য আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি লিখেছি।

আর্টিকেলটা যদি আপনারা প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়েন তাহলে আশা করি যে আপনারা অনেক সহজেই জেনে নিতে পারবেন জন্ম নিবন্ধন দিয়ে কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খোলার যায় সেই বিষয় সম্পর্কে।

আজকের আর্টিকেলের ভিতরে আপনাদের সাথে আমি আরো দেখাবো যে কিভাবে আইডি কার্ড ছাড়াই বিকাশ একাউন্ট খুলবেন অথবা জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলার জন্য কি কি দরকার হয়ে থাকে। কিভাবে ঘরে বসেই জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন বা এইভাবে কি সত্যিই খোলা যায়! সমস্ত কিছু নিয়ে আজকের লেখার ভিতরে আলোচনা করব।

কি কি ডকুমেন্ট লাগে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য ?

আপনি ৩ প্রকার এর ডকুমেন্ট দিয়েই আপনাদের বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

  • যদি আপনাদের কাছে এনআইডি কার্ড থেকে থাকে তাহলে কিন্তু আপনারা এনআইডি কার্ড দিয়েই বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন।
  • আর আপনাদের কাছে যদি পাসপোর্ট থেকে থাকে তাহলে ও সমস্যা নেই আপনারা কিন্তু পাসপোর্ট দিয়ে ও বিকাশ একাউন্ট খুলার কাজটি করতে পারবেন।
  • যদি আপনাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকে তাহলে কিন্তু ড্রাইভিং লাইসেন্স দিয়ে ও আপনারা বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

উপরে দেওয়া এনআইডি কার্ড, পাসপোর্ট কিংবা ড্রাইভিং লাইসেন্স এই ৩টির ভিতরে যদি একটাও না থাকে আপনাদের তাহলে কিন্তু আপনারা ইচ্ছা করলে আপনাদের জন্ম নিবন্ধন দিয়ে ও আপনাদের বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন। কিভাবে জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলবেন সেই সমস্ত প্রসেস নিচে আলোচনা করা হলে বিস্তারিত ভাবে দেখে নিন।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে যদি চান তাহলে কিন্তু আপনাদেরকে জন্ম নিবন্ধন কার্ড নিয়ে চলে যাবেন বিকাশ কাস্টমার কেয়ারের কাছে। তারপরে আপনাদের নিকটস্থ যে বিকাশ কাস্টমার কেয়ার অফিস আছে সেখান থেকে সরাসরি ভাবে বিকাশের কাস্টমার কেয়ার অফিসে যেতে হবে।

তারপরে তাদের কাছে বলবেন যে আমাদের ভোটার আইডি কার্ড নেই বা জাতীয় পরিচয় পত্র কার্ড নেই আমি জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে চাই, এরপরে কিন্তু তারা আপনাদের কাছ থেকে আপনার জন্ম নিবন্ধন কার্ড চাইবে তখন আপনারা তাদেরকে দিয়ে দিবেন এবং পাসপোর্ট সাইজ এর ২ কপি রঙিন ছবি চাইবে সেটা ও সাথে করে নিয়ে যাবেন। তারপর আপনাদের সিমে জন্ম নিবন্ধন কার্ড দিয়েই বিকাশ একাউন্ট খুলে দিবে।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য কি কি লাগে ?

  • জন্ম নিবন্ধন কার্ড দরকার হয়।
  • পাসপোর্ট সাইজ এর ২ কপি ছবি দিতে হবে।
  • জন্ম নিবন্ধন কার্ডে বয়স অবশ্যই ১৮ বছর বা তার বেশি হওয়া লাগবে।

উপরে দেওয়া ডকুমেন্টগুলোকে সাথে করে নিয়ে বিকাশের কাস্টমার কেয়ার অফিসে যাবেন তারপরে জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিতে পারবেন অনেক সহজেই। একটা কথা মনে রাখবেন যে , শুধু জন্ম নিবন্ধন কার্ড দিয়েই কিন্তু ঘরে বসে কোন রকম ভাবেই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন না।

বলে রাখা ভাল যে, ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে আপনাদের ভিতরে যারা বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন আর আপনারা যে জন্ম নিবন্ধন কার্ড দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিবে সেই ২টার ভিতরে কিন্তু কোন রকম ভাবে পার্থক্য থাকবে না।

যে সকল সুযোগ-সুবিধা আপনারা Nid Card দিয়ে খুললে পাবেন সেই সকল সুযোগ-সুবিধাই কিন্তু পেয়ে পাবেন। তাই এইখানে আপনাদেরকে চিন্তা করার কোণ কারন নেই যে ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে যদি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারতাম তাহলে মনে হয় বেশি সুবিধা পেয়ে যেতাম কিংবা জন্ম নিবন্ধন কার্ড দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুললে কম সুবিধা পাবো মনে হয় আর এইখানে কিন্তু এ রকমের কোন বিষয় নেই এই কথাটা সব সময় মনে রাখবেন।

আশা করা যায় যে এখন থেকে আপনাদের ভিতরে যাদের ভোটার আইডি কার্ড নেই তারা ও কিন্তু ইচ্ছা করলে এখন থেকে জন্ম নিবন্ধন কার্ড দিয়েই বিকাশ কাস্টমার কেয়ার অফিসে গিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিয়ে খুব সহজেই অনায়াসেই ব্যাবহার করতে পারবেন।

আমাদের শেষ কথা

আপনাদের যদি আমাদের আজকের এই আর্টিকেলটি ভাল লেগে থাকে তাহলে আপনাদের বন্ধুদের কাছে শেয়ার করে দিবেন। কারণ হল এই বিষয়টা সম্পর্কে অনেকেই আছেন যারা জানে না যে, প্রকৃত পক্ষে জন্ম নিবন্ধন কার্ড দিয়ে ও বিকাশ একাউন্ট খুলে ফেলা যায়।

আর আপনারা যদি তাদের সাথে শেয়ার করে তাহলে কিন্তু তারা এই বিষয়টা জেনে নিয়ে তারপরে তারা ও বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবে।

Shakil Ahamed

চেষ্টা করলে সফল অবশ্যই হওয়া যায়। চেষ্টা নতুন কিছু করার।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button