Education Guideline

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার উপায়

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার উপায় এই বিষয় টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার নিয়ম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা হয়ে গেছে। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। কিছু টেকনিক জানা থাকলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়া আপনার জন্য সহজ হয়ে যাবে।

নিচে আমি আপনাদের সাথে কয়েকটি টিপস শেয়ার করবো যেগুলো আপনারা মেনে চললে খুব সহজেই কিন্তু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেতে পারেন। শুধু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় নয় যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা যে কোনো পাবলিক পরিক্ষায় চান্স পেতে এই টিপস গুলো আপনাকে সাহায্য করবে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাওয়ার কয়েকটি টিপস

এই টিপস গুলো আমি আপনাকে এমনি এমনি দিচ্ছি তা কিন্তু নয়৷ সামনের বছর মানে ২০২১ সালে ডাক্তারী পরিক্ষাতে এই উপায় অনুসরণ করে আমার বড় খালা ডাক্তারী পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে আর একই বছর আমার পাশের বাসার ভাইয়া জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়েও চান্স পেয়েছে।

এই টিপস গুলো আমি তাদের থেকেই নিয়েছি। এবং তা আপনাদের সাথে শেয়ার করছি। আশা করি আপনাদের ও কাজে আসবে। নিম্নে সেই টিপস গুলো দেওয়া হলোঃ

১) প্রথমেই বিগত বছরের প্রশ্ন বুঝে বুঝে সমাধান করুন। কারণ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্ন অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আলাদা। তাই বিগত বছরের প্রশ্নগুলো দেখলে আপনার মধ্যে একটা ধারণা জন্মাবে জাবির প্রশ্ন সম্পর্কে।

২) আপনার বেসিক স্ট্রং করুন। কারণ এখানকার প্রশ্নগুলো এমনভাবে করা হয় যেখানে বেসিক বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দেয়া হয়। ফলে যার বেসিক যতো ভাল তার চান্স পাওয়ার সম্ভাবনা ততো বেশি।

৩) প্রায় সব ইউনিটেই বুদ্ধিমত্তা বা আইকিউ থেকে প্রশ্ন করা হয়। এতে আতংকিত হওয়ার কিছু নেই। আইকিউ অংশের জন্য ভালো মানের ছোট একটি বই পড়লেই যথেষ্ট। বাজারে বিভিন্ন প্রকাশনীর বুদ্ধিমত্তা সংক্রান্ত বই পাওয়া যায়। যেকোনো একটি বই কিনে কয়েক দিনে পড়ে শেষ করা সম্ভব।

৪) যারা বিজ্ঞান বিভাগের ইউনিটগুলোতে পরীক্ষা দিবেন তারা সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিন বোর্ড বইয়ে। মূল বইয়ের সকল খুঁটিনাটি ভালোভাবে আয়ত্ব করলেই এই ইউনিটগুলোতে ভালো করা সম্ভব।

আরো পড়ুনঃ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির নিয়ম ২০২২

৫) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘সি’ ইউনিটসহ আরো কিছু ইউনিটের ইংরেজি প্রশ্ন কিছুটা ব্যতিক্রমধর্মী হয়। Formal English, Informal English, Semi Formal English, Business English, Literary Terms ইত্যাদি ব্যতিক্রমধর্মী প্রশ্ন থাকে। তাই এসব বিষয় সম্পর্কে জেনে রাখুন।

৬) সাধারণ জ্ঞান প্রশ্নগুলো বিষয়ভিত্তিক হয়। অর্থাৎ যে ইউনিটে যেসব বিষয় আছে সেই ইউনিটে সেসব বিষয় থেকে প্রশ্ন আসে। এই সব বিষয়ভিত্তিক সাধারণ জ্ঞান এর জন্য আলাদা বই পড়ার দরকার নেই। কারণ বাজারের যেকোনো সাধারণ জ্ঞানের বইয়ে আপনি যা পড়েছেন সেগুলোই এখানে একটু অন্যভাবে আসবে।

৭) একাধিক প্রশ্ন করা যাবে এমন টপিকগুলো ভালো করে পড়ুন। কারণ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে প্রশ্ন করা হয়। আর মনে রাখবেন আপনার কাছে যেটা আজেবাজে প্রশ্ন মনে হবে সেটাই কিন্তু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

৯) ‘এফ’ এবং ‘জি’ ইউনিটে সকল প্রশ্ন ইংরেজি ভার্সনে হওয়ায় এই দুটি ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন ইংরেজি ভার্সনে হয়, ‘সি’ ইউনিটের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক অংশের প্রশ্নসহ ৫০% প্রশ্ন ইংলিশে হয়। বাংলায় সাধারণ জ্ঞান পড়ে এই ইউনিটগুলোতে ভালো করা কঠিন।

১০) যারা ‘বি’, ‘ই’, ‘জি’, ইউনিটের বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই ম্যাথ নিয়ে চিন্তিত। এসব ইউনিটের সাধারণ গণিতের প্রশ্ন নবম-দশম শ্রেনির ম্যাথ বই থেকে করা হয়। এটা নিয়ে চিন্তিত না হয়ে প্র্যাকটিস করুন যত পারেন।

১১) জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা এই বিশ্ববিদ্যালয়েই হবে। তাই সিট কোথায় পড়েছে এটা নিয়ে টেনশনের কিছু নেই। কার, কোথায়, কখন, কোনদিন পরীক্ষা হবে অর্থাৎ সিট প্ল্যান পরীক্ষার আগের দিন রাতে শিক্ষার্থীর ফোনে মেসেজের মাধ্যমে জানানো হবে এবং ওয়েবসাইটেও দিয়ে দেয়া হবে।

১২) পরীক্ষার হলে ভর্তি পরীক্ষার এডমিট কার্ড, এইচএসসির মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড অবশ্যই সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। যাদের মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড অন্য জায়গায় জমা আছে তাদেরকে রেজিস্ট্রেশন কার্ডের সত্যায়িত ফটোকপি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে।

এই উপায় গুলো অনুসরণ করলে আশা করবো যে আপনি নিজের কাজে উত্তীর্ণ হবেন। আর এগুলো আপনার কাজে অবশ্যই লাগবে।

তো প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট টি ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের সাইটে এরকম আরো অনেক হেল্পফুল পোস্ট রয়েছে সেগুলো পড়তে চাইলে আমাদের সাইট টি নিয়মিত ভিজিট করুন। আর আজকের মতো এখানেই বিদায়, ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

Shihab

নিজে যা জানি তা অন্যকে জানাতে ভালোবাসি আর্টিকেলের মাধ্যমে। বিভিন্ন ওয়েব সাইটে লেখালেখি করি.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button