Mobile Review

Symphony z35 ফোনটির ফিচার,গেমিং,ক্যামেরা খুটিনাটি দেখে নিন। সম্পুর্ন বাংলাতে

আজকে আপনাদের সামনে সিম্ফনি কোম্পানির নতুন আপডেটকৃত কম দামের ভালো ফোনের রিভিউ নিয়ে হাজির হয়েছি। ফোনটির নাম হলোঃ Symphony z35

আমরা এই আরটিকেল থেকে যা যা জানবো

Symphony z35

Symphony z40 এর বিশাল সাফল্যের পর সিম্ফনি বাজারে আনলো Symphony z35 । আসা করা যায় এই ফোনটি ও সিম্ফনি কোম্পানী দের খুব ভালো প্রফিট ও সাফ্যল্যোর মুখ দেখাবে। এই ফোনটির দাম মাত্র ১০,৪৯০ টাকা বা ১০,৫০০ টাকা। কম দামে ভালো মোবাইলের ভেতর বেস্ট ফোন গুলোর মধ্য এটি একটি।

symphony z35 price in bangladesh, symphony z35, symphony z35 back cover, symphony z35 vs z40, symphony z35 gsmarena, symphony z35 pro price in bangladesh 2021, symphony z35 4 64 price in bangladesh, symphony z35 price in bangladesh 2020, symphony z35 flash file, symphony z35 review,
symphony z35 review

Introduction

Symphony z35 এ সিম্ফনি কোম্পানী কিছু নতুনত্ব আনার চেস্টা করছে। এবং এই ফোনে অনেক নতুন জিনিস দেখা যাবে। এই ফোনের ডিজাইন টা অনেকটা infinix এর কয়েকটা মডেলের মতো ৩ডি প্যাটার্ন ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানা গেছে। পেছনে গ্লিসি ফিনিস দেওয়া হয়েছে। তবে আমি মনে করি তাদের ম্যাট ফিনিস দেওয়া উচিত ছিলো। এটা বেশি রিকোভার দেয় । ফোনটির বিশাল ব্যাটারির জন্য ফোনটি একটু মোটা – সোটা হয়ে গেছে। কিছুটা বাল্কি। ফোনটির ওজন প্রায় ২১৬ গ্রাম এর মতো।

ফোনটির উপরের দিকে রয়েছে 3.5mm এর একটি অডিও জ্যাক। ফোনটির ডান দিকে রয়েছে ভলিউম, পাওয়ার ও গুগল এসিস্ট্যান্ট বাটন। বামদিকে ডাবল সিম কার্ড ও মেমোরি স্লট রয়েছে। এটার ব্যাটারি একদম ফিক্স করা । একদম নিচের দিকে রয়েছে usb type c port, স্পিকার ও মাইক্রোফোন। এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৬.৮৩ ইঞ্চি এর বিশাল বড় ips এর HD ডিসপ্লে।

Performance

Symphony z40 এর মতো এই ফোনটি তেও helio g35 এর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে রয়েছে 2.3ghz octore । এই ফোনটি তে যার্ম হিসেবে রয়েছে ৩জিবি ও এক্সট্রানাল হিসেবে রয়েছে ৩২ জিবি। এই ফোনটির ফুল চার্জ আপনাকে ১দিন (হ্যাভি ইউজার) বা ২-৩ দিন (মিডিয়াম ইউজার) এর মতো রিকোভার দিতে পারবে। অন্যান্য ফোনের তুলনায় এর পারফরম্যান্স একটু বেশিই পাবেন।

Gaming

বর্তমানে আমরা সবাই প্রতিটা ভালো গেমিং ফোন খুজে থাকি। পাবজি ও ফ্রি ফায়ার এর ক্ষেত্রে মোটামুটি ভালো পার্ফরমেন্স পাবেন এই ফোন এ। তাছাড়া যারা মিডিয়াম কোয়ালিটির গেম খেলে থাকেন তারা খুব ভালো পার্ফরমেন্স পাবেন এই ফোনে। এই ফোন টি হেভি ইউজারদের জন্য না কেনাই ভালো। কারণ হেভি ইউজের ক্ষেত্রে ফোনটি একদম ই বানানো হয়নি। যারা ব্রাউজিং এর পাশাপাশি হাল্কা পাতলা গেম খেলেন তাদের জন্য এই ফোনটি আমি সাজেস্ট করছি। আপনাদের জন্য এটিও বেস্ট সাজেস্ট।

Camera

এই ফোনটি তে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের কোয়াড ক্যামেরা। সামনে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল এর সেল্ফি ক্যামেরা। ফোনটির সামনের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুললে অনেকটা সার্প ও ডিটেইল হবে। এই ফোনের পেছনের ক্যামেরা দিয়ে দিনের বেলায় ছবি তুললে অনেকটা সার্প হবে। তবে রাতের বেলা আলো সল্পতা দেখা দিতে পারে৷ ফোনটির ক্যামেরা দিয়ে দিনের বেলা ছবি তুললে অনেকটা ভালো পার্ফমেন্স পাবেন। এই ফোন দিয়ে দিনের বেলা ছবি তুলতে আশাজনক ফলাফল পাবেন।

Battery

এই ফোনে 6000mah এর বলেন ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে যার ফলে ফোনটি কিছুটা বাল্কি। সাধারণ ইউজার রা এই ফোনটি থেকে ২-৩ দিনের ব্যাকআপ পেয়ে যাবেন। আপনি যদি হেভি ইউজার হয়ে থাকেন তবুও এই ফোনটির ফুল চার্জ ১ দিনে শেষ করতে পারবেন না। এই ফোনটির বক্সে পেয়ে যাবেন ১৫ ওয়ার্ডের ফাস্ট চার্জার। এই ফোনটি ১৫ ওয়ার্ডের চার্জার সাপোর্টেড। এই চার্জার দিয়ে ফোনটি চার্জ হতে প্রায় ৩ঃ৩০ ঘন্টা সময় লাগবে। ফোনটিতে রিভার্স চার্জারের সুবিধা পাচ্ছেন।

ব্যক্তিগত মতামত

এই ফোনটি অন্যান্য কম দামির ফোন গুলোর থেকে অনেক গুন ভালো। ফোনটিতে আপনারা খুব ভালো ভাবে ব্রাউজিং এবং মিডিয়াম কোয়ালিটির গেম খেলতে পারবেন। যারা কম দামে ভালো ফোন খুজছেন তাদের জন্য এই ফোনটি ১০০% ভালো হবে বলে আমি মনে করি।

Shakil Ahamed

চেষ্টা করলে সফল অবশ্যই হওয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button