Movie Explained

Avengers Endgame Movie Review in Bangla

Avengers Endgame Review. Avengers Endgame এর মাধ্যমেই শেষ হলো এক আধুনিক রূপকথার আখ্যান। ২১ টা মুভির ২১ টা ভালোবাসার পরিণতি এই Endgame । ফলাফল বক্স অফিসে সর্বোচ্চ আয় করা মুভি। পুরো এক দশক ধরে বক্স অফিসে প্রথম স্থানে বসে রাজত্ব করা জেমস কেমেরুনের মাস্টারপিস Avatar কে পিছনে ফেলে এক নম্বরে জায়গা দখল করেছে Avengers Endgame ।

  • Movie Name: Avengers Endgame
  • Director: Russo Brothers
  • Cast: Robert Downey Jr, Chris Evans,
  • Chris Hemsworth
  • IMDb : 8.4/10 ( Verdict : Overrated)
  • Personal Rating: 8/10

প্লট টা আসলে শুরু হয়েছে Avengers Infinity War এর পরে থেকে জানেনই। পুরো পৃথিবীর অর্ধেক জনসংখ্যা মৃত। সেই সাথে বাকি ইউনিভার্সের ও একই অবস্থা। কিছু বোঝার আগেই ধুলিস্যাৎ হয়ে গেছে অর্ধেক মানুষ। আমাদের সুপারহিরো রা আজ একেবারে নিস্তব্ধ। ভেঙে পড়েছে মানুষের আশার প্রতীক প্রিয় Avengers। তবে হেরে যাওয়া মানেই কি সব শেষ হয়ে যাবে? নাহ । হেরে যাওয়া মানেই শেষ নয়। আবার এক নতুন দিগন্তের সূচনা করতে আমাদের সুপারহিরো রা আবার গঠন করেন Avengers। হাল্ক বানিয়ে ফেলে টাইম মেশিন। তাদের প্ল্যান হচ্ছে past এ গিয়ে স্টোন গুলা তারা থানোসের আগেই কালেক্ট করবে। এখানে দেখা যাবে নতুন অনেক কিছু। তারা কি পারবে কালেক্ট করতে? তারা কি পারবে মৃত দের ফিরিয়ে আনতে? নাকি আবারো থানোসের কাছে পেতে হবে পরাজয়ের স্বাদ? যদি জানার আগ্রহ থাকে তাহলে আপনাকে অনেক কষ্ট করতে হবে। আগের ২১ টি মুভি দেখতে হবে। তাহলেই আপনি টাইম আর প্লট ধরতে পারবেন। আর এই প্রায় ৩ ঘণ্টার মুভিটা তো দেখতে হবে অবশ্যই।

এই মুভিতে বেশ মজার কিছু সিন দেখতে পারবেন পাস্ট এর। Iron man তার বাবার সাথে meet করবে। Captain America vs Captain America হচ্ছে সবচেয়ে মজার সিন। সেখানে পাস্ট এর ক্যাপ ভাবে এটা তার ভাই লোকি।

এবার আসি পার্সোনাল অপিনিয়ন নিয়ে।
Storyline : মুভির স্টোরি লাইন আসলেই ভালো না। আরো ভালো কোনো প্লট আশা করেছিলাম। এই দিক থেকে বলতে গেলে রুশো ব্রাদার্স রা হতাশ করেছে।

BGM : এক কথায় একেবারে অসাধারণ।
VFX: One of the best।

Action Scene : এইটাই হচ্ছে মেইন আকর্ষন। মুভির লাস্টে যে অ্যাকশন টা দেখা যাবে সেটাকে নিয়ে আসলে বলার কিছু নাই। একেবারে মাইন্ড ব্লোয়িং। শুধু এই অ্যাকশান সিন টা দেখলে বাকি সব যতো সমস্যা আছে সব মাফ করে দেয়া যাবে। এই খানের থানোস আর ইনফিনিটি ওয়ার এর থানোস কিন্তু সেইম না। এই Thanos অনেক বেশি পাওয়ারফুল। এর কারণ হিসেবে বলা যায় তখন থানোস মাত্র আক্রমণ শুরু করেছিল। এটার প্লট ২০১৪ সালের। তখন সে আরো স্ট্রং ছিলো।

Income : এটার একমাত্র যৌক্তিক কারণ হচ্ছে ১০ বছরের একটা ইউনিভার্সের পরিসমাপ্তি। পূর্বের টোটাল ২১ টা মুভির ইমোশন এর রেজাল্ট এটা। যদি সিঙ্গেল মুভি হিসেবে চিন্তা করেন Avatar এর মতো তাহলে ঐটার ধারে কাছেও নাই।

যাই হোক যাদের দেখা বাকি আছে খুব তাড়াতাড়ি বাকী ২১ টা মুভি দেখে এটা দেখা শুরু করে দিন। বেশ ইঞ্জয় করতে পারবেন।

Happy watching….

Shakil Ahamed

চেষ্টা করলে সফল অবশ্যই হওয়া যায়। চেষ্টা নতুন কিছু করার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button