Online Earning Tips

ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভবিষ্যৎ কেমন

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। আপনাদেরকে আবারো আমাদের সাইটে আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক স্বাগতম জানাই। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে বিষয় টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করা যাক।

ফ্রিল্যান্সিং বা মুক্তপেশার প্রতি বর্তমানে মানুষজন দিনে দিনে এতো বেশি আগ্রহী হচ্ছে বা এগিয়ে যাচ্ছে তাদের লক্ষ পূরণের উদ্দেশ্য তাতে করে এই সেক্টর থেকে আমাদের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পথ যেমন সুগম হতে চলেছে, ঠিক তেমনি এই সেক্টর থেকে নিজে বদলে ফেলারও সময় চলে এসেছে শুধু শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে।

ফ্রিল্যান্সিং বা মুক্তপেশাতে নিজেকে নিয়োজিত করার জন্য আপনাকে প্রথমে বেশ কয়েকটি বিষয়ের প্রতি নজর দিতে হবে। সেগুলো মধ্যে প্রথম ও প্রধান কাজটি হচ্ছে আপনি আসলে এই সেক্টরের কোন ক্যাটেগরিকে থেকে মুনাফা অর্জনের জন্যে বেছে নিবেন? নিচে প্রধান প্রধান কয়েকটি ক্যাটেগরির নাম উল্লেখ করা হলোঃ

ফ্রিল্যান্সিং এর কয়েকটি ক্যাটেগরির নামসমূহঃ

১। ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট
২। গ্রাফিক্স ডিজাইন
৩। সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং
৪। এসইও
৫। ফেসবুক মার্কেটিং
৬। ইন্সটাগ্রাম মার্কেটিং
৭। এফিলিয়েট মার্কেটিং
৮। ডিজিটাল মার্কেটিং

উপরের তালিকা ব্যতিত আরো অনেক সেক্টর আছে যেখান থেকে আপনি চাইলে নিজেকে প্রস্তুত করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারেন। তবে তালিকায় বর্ণিত ক্যাটেগরিগুলোর মধ্যে বর্তমান সময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং বেশ জনপ্রিয়। আপনি যদি একজন ডিজিটাল মার্কেটার হয়ে থাকেন বা হতে চাচ্ছেন তাহলে অবশ্যই এই পোস্টটি আপনার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এইসমস্ত কাজের মাধ্যেমে আমাদের দেশ থেকেই অর্জিত হচ্ছে লক্ষ লক্ষ ডলার দেশীয় ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর ক্যাটেগরিসমূহঃ

•সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন
•সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং
•এফিলিয়েট মার্কেটিং
•সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ইত্যাদি।

সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন

Search Engine Optimization একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইট বা ওয়েবপেজকে সার্চ ইঞ্জিন ব্যবহারকারীদের সার্চ বা অনুসন্ধান ফলাফলের তালিকায় প্রথম দিকে দেখানোর চেষ্টা করা বা সর্বোচ্চকরন করা যাতে এটি অনুসন্ধান করলে ফলাফলে প্রায়শই দেখা যায়।

এসইও কোনো একক কাজ নয়, বরং বহুক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের কাজের সাথে সম্পৃক্ত একটি পদ্ধতি, বলা যায় সমন্বিত পদ্ধতি।

সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং

সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং বা SEM হচ্ছে আপনার ব্যবসার গঠনশৈলীর উপর ভিত্তি করে সাধারনত যে ধরনের মার্কেটিং করা হয়। এক্ষেত্রে কোন PPC (পে-পার-ক্লিক করুন) অথবা সিপিসি (খরচ প্রতি ক্লিকে) মডেল বা সিপিএম (খরচ প্রতি হাজার ইমপ্রেশন) মডেল নির্বাচন করতে পারবেন।

বর্তমান SEM অনলাইন মার্কেটিং এর মধ্যে সবথেকে সাশ্রয়ী অনলাইন মার্কেটিং, যা কিনা আপনার রিটার্ন অন ইনভেস্টমেন্ট বাড়াতে পারে। এর মাধ্যেমে আমরা আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে খুব সহজেই সকলের মাঝে তুলে ধরতে সক্ষম হতে পারি।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যেমে আপনি চাইলে খুব সহজেই নিজের পণ্যের প্রচার করতে পারেন খুব সহজেই। এর চাইতে সহজ আর সফল মাধ্যেম আপনি চাইলেও পাবেন না। সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনি আপনার নিজের পণ্যের পেজ বা প্রচার করে বিক্রির পরিমান বাড়াতে পারেন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

আপনি যদি আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং স্কিল ব্যবহার করে অন্য কোন ব্যক্তির প্রডাক্ট অথবা সার্ভিস সমূহ কমিশনের ভিত্তিতে প্রমোশন করান তখন সেটাকে বলা হবে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং।

আর এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যেমে আপনি অনেক টাকা অর্জন করতে পারবেন যদি ধর্য্য ধরে কাজ চালিয়ে যেতে পারেন। তবে এখান থেকে রাতারাতি ধনী হওয়ার চিন্তা না করাটাই আপনার জন্যে বেটার।

আজকে ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রাথমিক ধারণা এই পর্যন্তই। আমরা খুব শিঘ্রই বিস্তারিত আলোচনা করবো ডিজিটাল মার্কেটিং এর সকল ক্যাটেগরি সমূহ নিয়ে। আপনারা আমাদের ডিটেক্টবিডির সাথেই থাকুন আর নিজেকে আপডেট রাখুন প্রযুক্তির উন্নয়নের সাথে সাথে।

তো প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আপনাদের কাছে আজকের এই পোস্ট টি ভালো লেগেছে। যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই কিন্তু কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের সাইটে এরকম আরো অনেক হেল্পফুল পোস্ট রয়েছে সেগুলো পড়তে চাইলে আমাদের সাইট টি একবার ভিজিট করুন। আর আজকের মতো এখানেই বিদায়, ভালো থাকবেন সুস্থ্য থাকবেন।

Shihab

নিজে যা জানি তা অন্যকে জানাতে ভালোবাসি আর্টিকেলের মাধ্যমে। বিভিন্ন ওয়েব সাইটে লেখালেখি করি.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button