সঠিক নিয়মে স্মার্টফোনকে চার্জ করার নিয়ম

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে মোবাইল ফোন চার্জে দেওয়ার সঠিক নিয়ম এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

মোবাইল ফোনকে সঠিকভাবে চার্জ করার নিয়ম

বর্তমানে এমন একটি যুগ এ আমরা বসবাস করি যে খানে নিজের হাত এ থাকা স্মার্ট ফোন টি দিয়ে অন্যদের সাথে কথা বলা ছাড়াও আরো অনেক কাজই করা যায়। এমন একটা সময় ছিলো যখন একবার যদি মোবাইল টি কে ফুল চার্জ করা যেতো তাহলে আর বাকি এক বা আধা সপ্তাহ মোবাইল কে চার্জে না লাগালেও বেশ ভালো ভাবেই চলে যেতো।

আর মজার বিষয় হলো সেই ফোন গুলো এর ব্যাটারি এর mAh ছিলো আমাদের বর্তমানে হাতে থাকা মোবাইল এর ব্যাটারি এর প্রায় ১০ ভাগ এর ২ ভাগ এর মতো। এই ধরুন ৩৮০ mAh থেকে ১০০০ mAh এর মধ্য। আর এখন মোবাইল এ ব্যবহার করা হয় ৫০০০ mAh এর মতো বা এর থেকেও বেশি বড়।

তবে এখন ডেস্কটপ (কিছুটা), টিভি, রেডিও সহ আরো অনেক প্রকার যন্ত্র এর প্রয়োজন আমরা একটি মাত্র মোবাইল ফোন দিয়েই মেটানোর চেষ্টা করছি, তাই এই স্মার্ট ফোন কে নিয়মিত শক্তি যোগানোর জন্য ব্যাটারিকে চার্জ করা প্রয়োজন।

এই কথা ঠিক যে, বর্তমান এ স্মার্ট ফোন গুলো অনেক বেশি মিলি এম্পিয়ার এর ধারণ ক্ষমতার ব্যাটারি দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে। সেই সাথে কিন্তু এই ফোন গুলো এর ফাংশনালিটি ও অনেক প্রকার চেঞ্জ ও আপডেট কিরা হচ্ছে। আর এই সব ফাংশন কে সঠিক ভাবে ব্যবহার করার জন্য আমাদের প্রয়োজন মোবাইল এর ব্যাটারি কে প্রয়োজন মতো চার্জ করা প্রয়োজন।

আরো পড়ুনঃ   সকল সিমের কাষ্টোমার কেয়ারে কথা বলুন একদম ফ্রি

তো কীভাবে নিজের শখের স্মার্ট ফোন টি কে সঠিক ভাবে চার্জ দিয়ে তার যত্ন নিতে হয় সেটা জানতে আজকের পোস্ট টি পড়ুন। কেননা এই পোস্ট এ আমরা মোবাইল কে সঠিক ভাবে চার্জ করার নিয়ম নিয়েই কথা বলবো।

কোথায় চার্জ দেওয়ার জন্য কী কিনবো?

একটা প্রশ্ন মাথায় আসছে না, “কোথায় চার্জ দিবো” এর মানে কী? আমি হেডিং এ যা বললাম সেটার মানে কী? হয়তো আপনারা বুঝতে পারেন নি। যদি না বুঝেন তাহলে এই হেডিং প্যারাটি পড়ুন। তাহলেই বুঝতে পারবেন।

আমরা সাধারণত মোবাইল কে কোথায় চার্জ দেই, বাসাতে তাই না? তবে আপনি যদি একজন হ্যাভি ইউজার হন তাহলে কিন্তু আমাদের শুধু বাসাতে না, বাইরেও মাঝে মাঝে মোবাইল যে চার্জ করার প্রয়োজন হয়। তবে যদি আমরা একেবারে হাই লেভেলের হ্যাভি ইউজার হই তাহলে কিন্তু প্রায় সব সময় ই বাইরে গিয়ে আমাদের মোবাইল কে চার্জ করার প্রয়োজন পরে। এর জন্য শুধু একটা চার্জার দিয়ে মোবাইল কে চার্জ করা সম্ভব না। এর জন্য ভরসা একটি ই সেটা হলো পাওয়ার ব্যাংক।

অ্যাভারেজ পাওয়ার ব্যাংক গুলোতে আবার একটু ধীর গতিতে সব কিছু চার্জ হয় বিশেষ করে স্মার্ট ফোন গুলো তে। আবার যদি আমরা পাওয়ার ব্যাংক কে চার্জ করতেও কিন্তু ভুলে যাই তো সেটা কোনো কাজেই থাকে না আর। এক্ষেত্রে পকেট এ আমাদের অবশ্যই একটি ফোন অনুযায়ী একটা চার্জিং ক্যাবল রাখা উচিত।

আর একটি কথা। পাওয়ার ব্যাংক ক্রয় করার সময় অবশ্যই একটু বেশি মূল্য এর হলেও ভালো পাওয়ার ব্যাংক টাই কিনবেন। এতে করে আপনার ফোন টা ও সুরক্ষিত থাকবে এবং দুই দিন পর পর পাওয়ার ব্যাংক কে ও চেঞ্জ করতে হবে না। আর পাওয়ার ব্যাংক কেনার আগে অবশ্যই চেক করে নিবেন যে পাওয়ার ব্যাংক এ যেনো ১ টি এর বেশি পোর্ট থাকে। এতে আপনার সুবিধা হবে।

আরো পড়ুনঃ   গুগল ক্রোমের কয়েকটি ট্রিক ও টিপস

ফোন কতক্ষণ চার্জ দেবো?

মোবাইল ফোন কে কতক্ষণ চার্জ করতে হবে তা নিয়ে অনেক গুলো মতামত রয়েছে। কিন্তু সেখান থেকে আমরা ২ টা কে বেশি প্রাধাণ্য দিচ্ছি৷ এবং আমার মতামত চাইলে আমি শুধু একটি কে প্রাধাণ্য দিবো। তো চলুন দুইটা সম্পর্কে জেনে নিই।

১. এক দল বিশেষজ্ঞ রা বলে থাকেন যে, মোবাইল ফোন এর চার্জ যেনো সর্বদা ২০% এর নিচে না যায় এবং ফুল ১০০% চার্জ না করে ৮০% থেকে ৯৫% এর ভেতর রাখা।

২. আরেক দল বিশেষজ্ঞ রা বলেন যে, ফোনকে আপনারা চাইলে ১০০% পর্যন্ত চার্জ করতে পারেন এতে সমস্যা নেই। কারণ বর্তমানে মোবাইল এ হাই কোয়ালিটি সিস্টেম থাকায় ১০০% চার্জ হলে অটোমেটিক অফ হয়ে যায়। ফলে এতে কোনো সমস্যা হবে।

এই ছিলো ২ টা মতামত। তবে আপনারা যদি আমার ও ShopTips24 এর মতামত চান তো আমি বলবো মতামত ১ কে মেনে চলতে। তবে মতামত ১ টা তে একটু মোডিফাই করে নিতে হবে আমাদের। আমরা যদি ১ নং মতামত কে একটু মোডিফাই করে নেই তাহলে শুধু ১ টা নয় আরো কয়েক দল বিশেষজ্ঞ এর মতামত কে মানা হবে। তো চলুন সেই মোডিফাইকে জেনে নিই।

মোবাইল ফোন কে কখনো ২০% এর নিচে চার্জ যেতে দিবেন না। এবং চার্জ সর্বদা ৯৫% এর বেশি করবেন না। এর কারণ মোবাইল ফোন যতই আপডেট হোক। মনে করুন আমি ফোন কে চার্জ দিয়ে ঘুমিয়ে গেলাম আর ফোনে ১০০% চার্জ হয়ে গেলো আর আপডেট ফোন থাকায় অটো চার্জ অফ হয়ে গেলো।

কিন্তু, ফোনে কিন্তু নানা প্রকার সিস্টেম এপ কাজ হচ্ছে। এতে কিছুক্ষণ পর ১% বা ২% চার্জ কমে গেলো। আর আবার চার্জ শুরু হয়ে গেলো। এরকম বার বার হলে তো ফোনে ক্ষতি হবে। এর জন্যই আমি বলবো ফোনে একদম ১০০% চার্জ করবেন না। তবে সপ্তাহে ১ দিন ফোন কে একদম ০% চার্জ করে অফ হতে দিবেন আর ওই দিন ই ১০০% চার্জ করবেন। এতে ফোন ভালো থাকবে।

আরো পড়ুনঃ   গ্রামীণফোন এর ই-সিম নিয়ে সব কিছু জেনে নিন।

ফোনের মেইন চার্জার ব্যবহার করুন

মোবাইল ফোন কেনার সময় আমাদের ফোন এর বক্সে যে ক্যবল আর চার্জার এডোপ্টার দেওয়া হয় সেটা দিয়েই ফোন কে চার্জ করা উচিত। এতে ফোন ভালো থাকে।

তো বন্ধুরা আশা করি পোস্ট টি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর এরকম পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Please Share This Article

Leave a Comment