Tech News

কিভাবে গুগল শপিং ফিড তৈরী করবেন? ১ম পর্ব

আসসালামু আলাইকুম। আমি ভালো আছি আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব গুগল শপিং ফিড তৈরী করবেন কিভাবে। তো বেশি কথা না বলে চলুন শুরু করা যাক আজকের আর্টিকেলটি।

গুগল শপিং ফিড কি?

গুগল শপিং ফিড তৈরি করব কিন্তু অনেকেই জানিনা গুগল শপিং ফিড কি। আগে আপনাদেরকে গুগল শপিং ফিড সম্পর্কে একটু সামান্য ধারণা দিয়ে নেই। গুগল শপিং ফিড সম্পর্কে জানতে হলে প্রথমে আমরা গুগল শপিং সম্পর্কে জেনে নেই।

গুগল শপিং হলো গুগল বিজ্ঞাপন উদ্যোগগুলোর একটি শাখা।গুগল বিজ্ঞাপন, যেখানে ই-কমার্স বিক্রেতারা তাদের পণ্য গুলো সরাসরি প্রদর্শন করতে পারে এবং ক্রেতাদের কে সরাসরি পণ্য পেজে নিয়ে যেতে পারে।

গুগল শপিং ফিড

আরো সহজ ভাষায় বলতে গেলে মনে করেন আপনার একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট। ই-কমার্স ওয়েবসাইট এর প্রোডাক্ট গুলো আপনি গুগল শপিং পেজে আপডেট করবেন। এটাই হচ্ছে গুগল শপিং ফিড। আজকে আপনাদেরকে দেখাবো কিভাবে গুগোল শপিং বিডি আপনার প্রডাক্টগুলো অ্যাড করবেন।

গুগল শপিং ফিড হলো দুটি প্ল্যাটফর্মের ফাংশন – ১. গুগল মার্চেন্ট সেন্টার ও ২. গুগল শপিং বিজ্ঞাপন। গুগল মার্চেন্ট সেন্টার হ’ল যেখানে আপনার পণ্যের তালিকা সঞ্চয় করা আছে এবং গুগল শপিং বিজ্ঞাপনগুলি যেখানে আপনি ক্রেতাদের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করেন। 

গুগল মার্চেন্ট সেন্টার ও গুগল শপিং বিজ্ঞাপন এর সমন্বয় গুগল শপিং ফিড তৈরি করা হয়ে থাকে। তাই আপনাদেরকে ধাপে ধাপে দেখানো হবে কিভাবে গুগল মার্চেন্ট একাউন্ট খুলবেন এবং কিভাবে গুগল বিজ্ঞাপন একাউন্ট খুলবেন। কারণ গুগল শপিং ফিড তৈরি করতে হলে এই দুইটির প্রয়োজন পড়বে তাই আপনাদেরকে ধাপে ধাপে দেখানো হবে এই দুটি অ্যাকাউন্ট খোলা তারপর কিভাবে গুগল শপিং ফিড তৈরি করবেন তা দেখানো হবে।

কিভাবে গুগল এ্যাডস একাউন্ট  খুলবেন?

প্রথমে গুগল এ্যাডস একাউন্ট  খোলার জন্য গুগল গিয়ে সার্চ করুন গুগল এ্যাডস( Google Ads) । সার্চ করার পর নিচের ছবিটি মতো আসবে।

গুগল এ্যাডস
গুগল এ্যাডস

নিচের ছবি টি মতো আসার পরে ডান কনারে ক্লিক করলে দুটি অপশন দেখতে পারবেন।
যেমনঃ
১.START Now
২. Sign in

গুগল এ্যাডস

যাদের আগের একাউন্ট আছে তারা Sing in তে ক্লিক করবেন। আর আমরা যেহেতু নতুন একাউন্ট তৈরি করবো তাই Start now তে ক্লিক করবো।
তার পরে জিমেল(Gmail) ও পাসওয়ার্ড ( Password) দিয়ে গুগল এ্যাডস একাউন্ট তৈরি করে নিবো।

কিভাবে গুগল মার্চেন্ট সেন্টার একাউন্ট তৈরি করবো?

গুগল অ্যাডস একাউন্ট খোলা হয়ে গেলে এভার গুগল মার্চেন্ট সেন্টার একাউন্ট তৈরি করবো। তার জন্যও গুগল গিয়ে সার্চ করুন গুগল মার্চেন্ট সেন্টার(Google merchant centre)। সার্চ করার পর দেখতে পারবেন নিচে দেওয়া ছবি টি মতো আসবে।

গুগল মার্চেন্ট সেন্টার

নিচের ছবিটি আসার পরে ক্লিক করবেন, ক্লিক করার পর দেখতে পারবেন নিচের ছবিটি মতো আসবে।

গুগল মার্চেন্ট সেন্টার

উপরের ছবিটি মতো আসার পর বাম সাইটে ক্লিক করবেন ক্লিক করার পর তিনটি অপশন দেখতে পারবেন সেখান থেকে Get Started মধ্যে ক্লিক করে
গুগল মার্চেন্ট সেন্টার(Google merchant centre)
একাউন্ট জিমেল(gmail) ও পাসওয়ার্ড (Password) দিয়ে তৈরি করে নিবেন।

কিভাবে গুগল এ্যাডসর সাথে গুগল মার্চেন্ট কানেক্ট করবেন ?

গুগল বিজ্ঞাপন একাউন্ট এবং গুগল মার্চেন্ট একাউন্ট তৈরী করা হয়ে গেলে এ দুইটা একাউন্টে এখন কানেক্ট করতে হবে।আসুন দেখে নেই কিভাবে গুগল এ্যাডসর সাথে গুগল মার্চেন্ট কানেক্ট করবেন।

গুগল এ্যাডসর সাথে গুগল মার্চেন্ট কানেক্ট করার জন্য প্রথমে গুগল মার্চেন্ট সেন্টার(Google merchant centre) লগইন করতে হবে। লগইন করার পর নিচের ছবিটি মতো আসবে।

উপরের ছবিটির মতো আসার পরে  Linking নামে একটা অপশন দেখতে পারবেন। জিমেইল মাধ্যমে ইনভাইট সেন্ট করে গুগল এ্যাডস একাউন্ট লগইন করে গুগল মার্চেন্ট সেন্টার(Google merchant centre) কানেক্ট করে নিবেন।

কিভাবে গুগল শপিং ফিড তৈরী করবেন ?

প্রথমে গুগল মার্চেন্ট সেন্টার(Google merchant centre) একাউন্ট লগইন করবেন। তারপরে Product ক্লিক করার পর দেখতে পারবেন ফিড নামে একটি অপশন সেখানে ক্লিক করবেন। ঠিক নিচের ছবিটি মতো আসবে।

গুগল শপিং ফিড

তার পরে ফিডে ক্লিক করার পর  ➕ (plus) চিহ্ন দেখতে পারবেন। সেখানে ক্লিক করবেন।  ঠিক নিচের ছবিটির মতো আসবে ।

গুগল শপিং ফিড

ছবি টি আসার পর কোন দেশে পণ্য সেল দিতে চান ও ভাষা সিলেক্ট করে নিবেন। তার পরে Continue তে ক্লিক করবেন।

গুগল শপিং ফিড

Continue ক্লিক করার পর নিচের ছবিটি মতো আসবে।

গুগল শপিং ফিড

তার পরে ছবিটি মতো আসার পরে, প্রথমে আপনার ফিডের নাম দিবেন। তার পরে নিচে আরও চারটি অপশন দেখতে পারবেন।  যেমনঃ
১.  Google Sheet
২. Schedule fetch
৩. Upload
৪. Content Api.

এই চারটি  উপায়ে আপনি ফিড তৈরী করতে পারবেন। তার মধ্যে সবচেয়ে সহজ হল,Google Sheet ও Content Apl. আপনারা এই ভাবে গুগল শপিং ফিড তৈরী Product Upload করতে পারবেন।

অনেক লিখা হয়েছে আজকে এইটুকুই।Google Sheet ও Content Apl. আপনারা এই ভাবে গুগল শপিং ফিড তৈরী Product Upload করতে পারবেন তা নিয়ে আরো একটি পার্ট নিয়ে আসবো সেই পর্যন্ত আমাদের সাথেই থাকুন আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন। এবং কাদের নেক্সট পার্ট লাগবে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। বেশি কমেন্ট পেলে খুব দ্রুত পরবর্তী পার্ট নিয়ে আসা হবে।

আমাদের শেষ কথা

যেটুকু দেখানো হয়েছে তার মধ্যেই আপনি চাইলে গুগল শপিং ফিড তৈরী করতে পারবেন। তারপরও কেউ যদি Google Sheet বা Google Api কানেক্ট করতে না পারেন তাহলে পরবর্তী একটি আরটিকেল নিয়ে আসবো। কোন কিছু যদি বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ সবাই কে। নিজে ভালো থাকুন অন্য ভালো রাখুন।

Shakil

ভালো লাগা থেকেই এই অনলাইনে আসা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button