খুব সহজে কিভাবে ছেলেদের ব্রণ দূর করা যায়।

একজন আদর্শ পুরুষ ও সুঠাম দেহের অদিকারী হয়েও যদি আপনার মুখে যদি ব্রণ থাকে তাহলে এটা একটা লজ্জাজনক । তার জন্য হয়ত আপনি বিয়ের
অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে যেকোন অনুষ্ঠানে নিজেকে উপস্থাপন করতে ভয় পান । তাই আজ আপনাদের জন্য থাকছে ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার উপায়।
তাই শুরু থেকে শেষ অবধি পুরো ব্লগটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। চলুন জেনে নেই ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার উপায়গুলো।

ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার উপায়

ছেলেদের মুখের ব্রণ দূর করার জন্য আগে কয়েকটি কথা মাথায় রাখতে হবে।বাজারের কতগুলো উল্টা পাল্টা ক্রিম আছে সেগুলো ব্যবহার করা যাবে না ।
আপনাকে অবশ্যই একজন স্কিন বিশেষজ্ঞ দেখাতে হবে। ডাক্তার যা যা বলে সেগুলো নিয়ম করে চলতে হবে। তবে আমি এখানে কয়েকটি নিয়ম বলে দিব যা
আপনার মেডিসিন ছাড়াও আপনি প্রাকৃতিক উপায় ব্যবহার করে মুখের ব্রন দূর করতে পারবেন।

পানি

ব্রণ দূর করার ক্ষেত্রে পানির গুরুত্ব অনেক। প্রতিদিন আপনি চেষ্টা করুন ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করার। এতে আপনার শরীর ও থাকবে সুস্থ্য।

পুদিনা পাতার ব্যবহার

অতিরিক্ত গরমে আমাদের মুখের ব্রণ আরও ভয়াবহ রুপ নিয়ে থাকে। তাই প্রতিদিন পুদিনা পাতা বেটে অন্তত ২০ মিনিট আপনার মুখের ব্রণের উপর লাগিয়ে
রাখুন এতে আপনরা ব্রণ দিন দিন কমে আসবে।

ডিম এর ব্যবহার

ত্বকের খসখসে ভাব অংশ দূর করতে সাহায্যে করে ডিম এর সাদা অংশ। ডিমের সাদা অংশ আক্রান্ত স্থানে রাতে শোয়ার সময় ব্যবহার করুন।তবে লাগানোর
৩০ মিনিট পর পানি দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলুন।

আরো পড়ুনঃ   উপায় মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট খোলার নিয়ম – How To Open Upay Account | উপায় মোবাইল ব্যাংকিং সম্পর্কে বিস্তারিত

ব্রণ দূর করতে পেঁপে

এক কাপ পাকা পেঁপে চটকে নিন তারপর পাতিলেবু এক টেবিল চামচ পরিমান রস নিয়ে চালের গুড়ার সাথে মিশিয়ে মুখে ১৫ থেকে ২০ মিনিট মেসেজ
করুন।তার কিছুক্ষন পর পানি দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলুন।

টুথপেস্ট

টুথপেস্টকে ফেসেপ্যাকের মত ব্যবহার করে কমিয়ে নিয়ে আসতে পারেন আপনার মুখের ব্রণ।এই টুথপেস্ট আপনার মুখের অতিরিক্ত তেল গুলোকে শুষে নেবে
ফলে আপনার মুখ আর কোনদিন তৈলাক্ত হবে না।তাছাড়া যাদের মুখ খুব তৈলাক্ত তারা টুথপেস্ট ব্যবহার করতে পারেন এত ভাল উপকার পাবেন।তবে খুব
বেশি ব্যবহার করতে পারবেন না কম করে ব্যবহার করুন ব্রণে । যদি কাজ না হয় তাহলে একটু একটু করে বাড়াতে পারেন।

গ্রিন টি

গ্রিন টি ব্রণের ক্ষেত্রে খুবই উপকারী । গরম পানি দিয়ে গ্রিন টি বানিযে তারপর সেটা কে একদম ঠান্ডা করে ব্রণের জায়গায় ব্যবহার করুন। তাছাড়া আপনি
চাইলে তুলা ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে ত্বকের সাথে আরও ভালোভাবে মিশে যাবে এই গ্রিন টি। ত্বকের উপর প্রায় ২০ মিনিট এর মত রেখে তা পানি
দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। এতে আপনার ব্রণ দিন দিন কমে আসবে।

অতিরিক্ত মাস্টাবেড

আমাদের তরুন সমাজ আজ শুধু এটার জন্যই দিন দিন ধ্বংস হয়ে যাওয়ার পথে। অতিরিক্ত মাস্টারবেড এর ফলে আমাদের হরমোন এর পরিমাণ অনেক কমে যায় ফলে মুখে ব্রনের সৃষ্টি হয়।
তাই ব্রণ থেকে বাচার জন্য অবশ্যই মাস্টারবেড থেকে দুরে থাকতে হবে। সৎ কাজে মনোনিবেশ করুন। ভাল চিন্তা করুন । বই পড়ার অভ্যাস ও নিজেকে সবসময় কাজে ব্যস্ত রাখার চেষ্টা করুন তাহলে দেখবেন এই মাস্টারবেড নামক ভয়ানক থাবার হাত থেকে আপনি বেচে গেছেন।

সর্বশেষে বলব মুখের ব্রণ এর জন্য একমাত্র দায়ী হল পরিষ্কার না থাকা । তাই চেষ্টা করুন সারাদিন এর কাজ শেষে বাসায় আসার পর যেন ফেস ওয়াস
দিয়ে মুখ পরিষ্কার করা হয়। এতে ব্রনের উপদ্রব থেকে আপনি অনেকটা দুরে ই থাকতে পারবেন।তাই সর্বদা মুখের ত্বককে পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন। আর
যারা এই মুহুর্তে আক্রান্ত তারা চেষ্টা করুন রোদে না যাওয়ার জন্য এবং বাহিরে কম বের হওয়ার চেষ্টা করুন।

Please Share This Article

Leave a Comment