প্রতিবারের মতো এবারও রমজানের আগেই ৮০০ পণ্যের দাম কমলো কাতার সরকার

রোজা এলে প্রতি বছর বাংলাদেশে যেমন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়ে যায়, ঠিক তার উল্টো হয় মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে। পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে প্রতি বছরই দেশটিতে দাম কমানো হয় দুধ, চিনি, আটাসহ শত শত পণ্যের। সেই ধারাবাহিকতায় এ বছরও আটশ’র বেশি পণ্যের দাম কমিয়েছে কাতার সরকার।

মঙ্গলবার (২২ মার্চ) কাতারের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয় ঘোষণা দিয়েছে, রোজা শুরু হতে এখনো বেশ কিছুদিন বাকি থাকলেও বুধবার (২৩ মার্চ) থেকেই আট শতাধিক পণ্যে মূল্যছাড় কার্যকর হবে। রমজান মাসের শেষ পর্যন্ত চলবে এই কার্যক্রম। তাদের এই উদ্যোগে সহযোগিতা করছে দেশটির প্রধান শপিংমল ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো।

কাতার সরকারের ঘোষণা অনুসারে এ বছর রমজান উপলক্ষে দাম কমানো পণ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে খেজুর, খনিজ ও বোতলজাত পানি, লেবু, চাল, হিমায়িত শাকসবজি, মুরগি মধু, ময়দা, সেরেয়াল, দই ও দুগ্ধজাত পণ্য,চা, ঘি, লবণ, অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল, গুঁড়া ও তরল দুধ, পনির, জুস, চিনি, কফি, ডিম, মাংস, ভোজ্যতেল, কাগজের ন্যাপকিন, ডিটারজেন্ট, ময়লার ব্যাগ, ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা পণ্য প্রভৃতি।

এর আগে গত বছরও রমজান উপলক্ষে সাড়ে ছয়শ’র বেশি পণ্যের দাম কমিয়েছিল কাতার।

রমজান মাসে মুসলিমদের রোজা পালনের সুবিধার্থে গত নয় বছর ধরেই মূল্যছাড়ের এই কার্যক্রম পরিচালনা করছে কাতার। সরকারের এই উদ্যোগ বাস্তবায়নে হাত বাড়িয়ে দিয়েছে সেখানকার বড় বড় সব শপিংমল ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো।

এ বছর রমজান শুরু হতে এখনও কিছুদিন বাকি। তবে কাতার সরকারের ঘোষণা অনুসারে গত মঙ্গলবার থেকেই কার্যকর হয়েছে মূল্যছাড়ের নির্দেশনা, যা থাকবে রমজানের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত।

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক খেজুর, খনিজ ও বোতলজাত পানি, লেবু, চাল, হিমায়িত শাকসবজি, মুরগি মধু, ময়দা, সেরেয়াল, দই ও দুগ্ধজাত পণ্য,চা, ঘি, লবণ, অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল, গুঁড়া ও তরল দুধ, পনির, জুস, চিনি, কফি, ডিম, মাংস, ভোজ্যতেল, কাগজের ন্যাপকিন, ডিটারজেন্ট, ময়লার ব্যাগ, ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা পণ্য প্রভৃতি দুধসহ বিভিন্ন ধরনের খাদ্যদ্রব্য এবং রোজার সময় চাহিদা বেড়ে যায় এ ধরনের পণ্যগুলোর দাম কমানো হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ   আজকে সোনার দাম কত – সোনার দাম আজ কত ২০২১ বাংলাদেশ

শুধু মূল্যছাড় দেয়াই নয়, এটি ঠিকভাবে কার্যকর হওয়া এবং পণ্যের গুণগত মান নিশ্চিতে পুরোটা সময় কঠোর নজরদারি চালাবে কাতারের ভোক্তা সুরক্ষা বিভাগ।

Please Share This Article

Leave a Comment