Education Guideline

বেতন মওকুফের জন্য আবেদন, বেতন মওকুফের জন্য আবেদন পত্র লেখার নিয়ম

বেতন মওকুফের জন্য আবেদনঃ- করোনা মহামারীর কারণে অনেকের একমাত্র উপার্জন কারী কর্মহীন হয়ে পড়েছিলেন। পরিবেশ এখনও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি, স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যেতে আরও অনেক সময় লাগবে।

প্রিয় শিক্ষার্থীরা, করোনাকালীন সময়ে বেতন মওকুফের জন্য আবেদন করা এখন অনেকের জন্যই খুবই জরুরী। আমরা সবাই জানি, মহামারী এই করোনাভাইরাসের কারণে অনেকের অভিভাবকই কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাই তোমারও যদি এ ধরনের কোন সমস্যা হয়ে থাকে, তাহলে করোনাকালীন সময়ে বেতন মওকুফের জন্য আবেদন পত্র তৈরি করতে পারো। আমরা সুন্দর করে উপস্থাপন করেছি কলেজ এবং স্কুলের বেতন মওকুফের জন্য আবেদন দরখাস্ত।

গত দুই বৎসর দেশের প্রায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই বন্ধ ছিল। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এবং অভিভাবক কর্মহীন হয়ে পড়ায় এই দুই বৎসরে অনেক শিক্ষার্থীর স্কুল, কলেজের মাসিক বেতন দেওয়া হয়নি। অনেকের প্রায় দুই বৎসরের মাসিক বেতন বকেয়া হয়ে পড়েছে।

স্কুলের বেতন মওকুফের জন্য আবেদন দরখাস্ত

ছেলে-মেয়েদের স্কুলের বকেয়া বেতন পরিশোধ করা অনেক অভিভাবকের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। বকেয়া বেতন দিতে না পারায় অনেক শিক্ষার্থীর লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। এরূপ পরিস্থিতিতে অনেক অভিভাবক অসহায় পড়েছেন।

এক্ষেত্রে সেই অভিভাবকদের করণীয় কি? এ প্রশ্নের উত্তরে তাদের জন্য পরামর্শ  হলো- আপনি আপনার সন্তানের স্কুলের প্রধান বরাবর বেতন মওকুফের জন্য দরখাস্ত করুন। দরখাস্তের মাধ্যমে আপনার আর্থিক অস্বচ্ছলতার কথা তুলে ধরুন।

কলেজের বেতন মওকুফের জন্য আবেদন দরখাস্ত

ছেলে-মেয়েদের কলেজের বকেয়া বেতন পরিশোধ করা অনেক অভিভাবকের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না। বকেয়া বেতন দিতে না পারায় অনেক শিক্ষার্থীর লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। এরূপ পরিস্থিতিতে অনেক অভিভাবক অসহায় পড়েছেন।

এক্ষেত্রে সেই অভিভাবকদের করণীয় কি? এ প্রশ্নের উত্তরে তাদের জন্য পরামর্শ  হলো- আপনি আপনার সন্তানের কলেজের প্রধান বরাবর বেতন মওকুফের জন্য দরখাস্ত করুন। দরখাস্তের মাধ্যমে আপনার আর্থিক অস্বচ্ছলতার কথা তুলে ধরুন।

বেতন মওকুফের জন্য আবেদন দরখাস্ত

এখানে কলেজের বেতন মওকুফের জন্য আবেদন পত্র দরখাস্ত তুলে ধরা হলো আপনি বা আপনার সন্তান যদি স্কুলের হয়ে থাকেন তাহলে একটু সামান্য পরিবর্তন করে স্কুলের জন্যও বেতন মওকুফের জন্য আবেদন দরখাস্ত লিখতে পারবেন।

বেতন মওকুফের জন্য আবেদন লিখার নমুনা- স্কুল

১৭ এপ্রিল ২০২২
বরাবর
প্রধান শিক্ষক
নাদিরাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়, বরিশাল
বিষয়: সম্পূর্ণ বিনামূল্যে অধ্যায়নের জন্য আবেদন

জনাব,
বিনীত নিবেদন এই যে, আমি আপনার বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর একজন নিয়মিত ছাত্র আরিফুল ইসলাম রবি । আমি তিন বছর যাবত আপনার বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত । এই দীর্ঘ সময়ে, আমি সবসময় আমার মাসিক বেতন পরীক্ষার ফিস ও যাবতীয় ফি যথাসময়ে পরিশোধ করে আসছি । কিন্তু, আমার বাবা একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আমাদের পরিবারের সদস্যদের মৌলিক চাহিদাগুলো খুব কমই মেটাতে সক্ষম । এখন আমার পরিবার থেকে আমার শিক্ষার খরচ বহন করার মতো অবস্থায় নেই । সুতরাং আপনি আমাকে সম্পূর্ণ বেতন ও ফি মওকুফ না করলে আমার অধ্যয়ন চালিয়ে যাওয়া আমার পক্ষে সম্ভব নয় । এই পরিস্থিতিতে, আমি অনুনয় করছি এবং আশা করছি যে আপনি আমাকে একটি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ছাত্রত্ব প্রদান করার জন্য যথেষ্ট সদয় হবেন ।

নিবেদক,
আপনার বাধ্যগত ছাত্র
মোঃ সাকিল আহম্মেদ
দশম শ্রেণী , রোল নং-০৬

বেতন মওকুফের জন্য আবেদন লিখার নমুনা- কলেজ

তারিখ: ২৩.০৫.২০২২
বরাবর,
অধ্যক্ষ
ঢাকা নটরডেম কলেজ, ঢাকা।

বিষয়: বেতন মওকুফের জন্য আবেদন।

মহোদয়,
আমি আপনার কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির একজন নিয়মিত ছাত্র। গত দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় আমি শতকরা ৭৫ ভাগ নম্বর পেয়েছি। আশা করি, আগামী পরীক্ষায় সম্মিলিত মেধা তালিকায় স্থান অধিকার করে কলেজের সুনাম বৃদ্ধি করতে সক্ষম হব। আমার পিতা একজন দরিদ্র কৃষক বিধায় তার রোজগার দিয়ে পরিবারের ভরণ-পোষণ তথা আমার কলেজের বেতন পরিশোধ করতে একেবারেই অক্ষম।

অতএব, মহোদয়ের সমীপে আকুল আবেদন, আমার দরিদ্রবস্থা বিবেচনা করে বেতন মওকুফের মাধ্যমে উচ্চশিক্ষার সুযোগদানে বাধিন করবেন।

নিবেদক
আপনার একান্ত অনুগত
সাকিল আহম্মেদ
শ্রেণি: দ্বাদশ, বিভাগ: বিজ্ঞান, রোল: ১০৫।

আমাদের শেষ কথা

আমরা সবাই জানি, মহামারী এই করোনাভাইরাসের কারণে অনেকের অভিভাবকই কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাই তোমারও যদি এ ধরনের কোন সমস্যা হয়ে থাকে, তাহলে করোনাকালীন সময়ে বেতন মওকুফের জন্য আবেদন পত্র তৈরি করতে পারো। আমরা সুন্দর করে উপস্থাপন করেছি কলেজ এবং স্কুলের বেতন মওকুফের জন্য আবেদন দরখাস্ত।

Shakil Ahamed

চেষ্টা করলে সফল অবশ্যই হওয়া যায়। চেষ্টা নতুন কিছু করার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button