Job Circular

সিসিডিবি এনজিও চাকরির বিজ্ঞপ্তি ২০২২

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে সিসিডিবি চাকরির বিজ্ঞাপ্তি এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

সিসিডিবি কী?

খ্রিস্টান কমিশন ফর ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ (CCDB) ১৯৭৩ সালে গঠিত হয়েছিল, একটি জাতীয় পর্যায়ের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা হিসাবে, ক্ষতিগ্রস্তদের প্রয়োজনে সাড়া দেওয়ার জন্য, বাংলাদেশ ইকুমেনিক্যাল রিলিফ অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন সার্ভিসেস (BERRS) দ্বারা ১৯৭২ সালে শুরু করা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য। ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় জনগণ এবং উন্নয়নমূলক হস্তক্ষেপ গ্রহণ করা।

১৯৭৫ সাল পর্যন্ত সিসিডিবি প্রধানত ব্যাপক ত্রাণ ও পুনর্বাসনের কাজে জড়িত ছিল যা যুদ্ধ-বিধ্বস্ত মানুষকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে অনেকাংশে সাহায্য করেছিল। সেই সময়ের পরে, সিসিডিবি বাংলাদেশের গ্রামীণ এলাকায় সম্প্রদায় ও মানব উন্নয়নে ক্রমবর্ধমানভাবে জোর দিয়েছে। মানবসম্পদ উন্নয়নে বিপুল বিনিয়োগ করা হয়েছে, কিন্তু আশানুরূপ ফলাফল অর্জিত হয়নি।

১৯৮০ এর দশকের শেষের দিকে সিসিডিবি প্রথম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা তৈরি করে এবং দাতাদের কনসোর্টিয়ামের কাছে উপস্থাপন করে। প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার মাধ্যমে মানুষের সম্ভাবনার উন্মোচন করার জন্য প্রধান জোর দেওয়া হয়েছিল। একই সময়ে সিসিডিবি দারিদ্র্য মোকাবেলায় জনগণের অংশগ্রহণমূলক প্রক্রিয়ার ওপর জোর দেওয়া শুরু করে।

জনগণকে উন্নয়নের কেন্দ্রবিন্দুতে না রেখে টেকসই উন্নয়ন সম্ভব নয়, ১৯৮০ সাল থেকে সিসিডিবি ব্যাপকভাবে জনগণের অংশগ্রহণমূলক প্রক্রিয়া অনুশীলন করেছে। প্রোগ্রাম এবং ব্যবস্থাপনা উভয় পর্যায়ে কিছু পরিবর্তন হয়েছে এবং অনেক দায়িত্ব গণপ্রতিষ্ঠানের (পিআই) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

১৯৯৬ সাল থেকে, সিসিডিবি আবার প্রোগ্রামে কিছু পরিবর্তন আনে। এটি দরিদ্র মানুষের সুবিধা অপ্টিমাইজ করার জন্য পিপলস ম্যানেজড সেভিংস অ্যান্ড ক্রেডিট প্রোগ্রাম (PMSC) চালু করেছে। এছাড়াও কমিউনিটি হেলথ প্রোগ্রাম এবং কমিউনিটি ভিত্তিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনাকেও প্রধান উন্নয়ন উদ্যোগ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

খ্রিস্টান কমিশন ফর ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ (সিসিডিবি) একটি সংস্থা হিসাবে বিকাশের পর্যায়ক্রমে অনেকগুলি পরিবর্তন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে গেছে, উদীয়মান সমস্যাগুলির প্রতিক্রিয়া জানাতে এবং দরিদ্রদের চাহিদা পূরণের জন্য আরও ভাল বিকল্পের সন্ধানে।

সিসিডিবি একটি শিক্ষামূলক, অলাভজনক সংস্থা, যা প্রকল্প এবং কর্মসূচির মাধ্যমে জনগণের চাহিদা এবং আকাঙ্ক্ষার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে, জরুরী প্রয়োজন মোকাবেলা করে, ত্রাণ, পুনর্বাসন ও পুনর্গঠনের মাধ্যমে উন্নয়ন কর্মসূচী অনুসরণ করে, মানবসম্পদ উন্নয়নে আত্মনির্ভরশীলতা, সম্মিলিত প্রবৃদ্ধি এবং বিতরণের দিকে মনোনিবেশ করে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সম্প্রদায় পরিচালিত সংস্থাগুলির মাধ্যমে আয় বৃদ্ধির মাধ্যমে সুশাসন ও শান্তির প্রচারের জন্য ন্যায়বিচার।

গৃহীত সকল প্রকল্প ও কর্মসূচীর কেন্দ্রে মানুষ হয়েছে। তাদের সক্রিয় অংশগ্রহণ মৌলিক নীতি, যেখানে মূল্য ভিত্তিক ধারণা, প্রক্রিয়া এবং অনুশীলনের উপর জোর দেওয়া হচ্ছে। বাংলাদেশে চার দশকের কার্যক্রমের সময়কালে, সিসিডিবি টেকসই উন্নয়ন অর্জনের জন্য তার দৃষ্টিভঙ্গিতে বিকশিত হয়েছে।

তো এই ঐতিহ্যবাহী চাকরি যদি আপনি করতে চান তাহলে আপনার জন্য এটি সুবর্ণ সুযোগ। এখন এই চাকরিতে ২ টি পদ ফাকা রয়েছে। আপনারা চাইলে সেখানে কাজ করার জন্য আবেদন করতে পারেন। আজকের পোস্ট এ এই চাকরির সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবো।

 

আরো পড়ুনঃ বাংলাদেশ নৌবাহিনী নিয়োগ ২০২২

 

সিসিডিবি চাকরি এর বিজ্ঞপ্তি ২০২২

বর্তমানে সিসিডিবি এনজিও তে ২ টি পদ ফাকা রয়েছে, সে সম্পর্কে নিচে বলা হলোঃ

 

সিসিডিবি এনজিও চাকরি পদ-১

পদের নামঃ শাখা ব্যবস্থাপক,
সর্বোচ্চ বয়স সীমাঃ ৩৮ বছর,
মাসিক বেতনঃ ২৫ হাজার টাকা,
কাজের প্রকৃতিঃ স্বাধীনভাবে ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমের শাখা পর্যায়ের যাবতীয় কাজকর্ম পরিচালনা করা।

 

পদ-১ এ কাজের যোগ্যতা

স্নাতকোত্তর পাশসহ (৩টি দ্বিতীয় বিভাগ) ক্ষুদ্রঋণ শাখা ব্যবস্থাপক হিসেবে কমপক্ষে ২ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। মোটর সাইকেল চালানোর বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকতে হবে।

 

সিসিডিবি এনজিও চাকরি পদ-২

পদের নামঃ মাঠ সংগোঠক,
সর্বোচ্চ বয়স সীমাঃ ২২ – ৩২ বছর,
মাসিক বেতনঃ ১৭ হাজার টাকা,
কাজের প্রকৃতিঃ ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমে ঋণ বিতরণ ও আদায়ের কাজ পরিচালনা করা।

 

পদ – ২ এ কাজের যোগ্যতা

ন্যূনতম এইচএসসি পাশ। দুটো পরীক্ষায় দ্বিতীয় বিভাগ অথবা ২.৫ জিপিএ থাকতে হবে। জাতীয় পর্যায়ের এমআরএ’র সনদপ্রাপ্ত এনজিওতে ঋণ কার্যক্রমে ২ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। বাইসাইকেল চালানো বাধ্যতামূলক।

 

চাকরির আবেদন এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য

উক্ত পদগুলোয় ৬ মাস পর স্থায়ীকরণ করা হবে এবং সংস্থার প্রচলিত বেতন স্কেল অনুযায়ী অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাদি প্রদান করা হবে। এছাড়া প্রার্থীদের যোগদানের সময় ৩০০ টাকার নিন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে জামানতনামা, সর্বশেষ শিক্ষাবর্ষের মূল সনদপত্র এবং ১নং পদের জন্য ১৫,০০০ টাকা এবং ২ নং পদের জন্য ১০,০০০ টাকা সিকিউরিটি মানি (সুদসহ ফেরতযোগ্য) হিসেবে জমা দিতে হবে।

 

চাকরির জন্য আবেদন পদ্ধতি

আগ্রহী প্রার্থীদের আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ তারিখের মধ্যে স্বহস্তে লিখিত দরখাস্ত, সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের এক কপি রঙিন ছবি ও জীবন-বৃত্তান্তসহ (অভিজ্ঞতার বিবরণসহ) নিম্নোক্ত ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

ঠিকানাঃ এইচআরএমডি বিভাগ, সিসিডিবি, ৮৮ সেনপাড়া পর্বতা, মিরপুর-১০, ঢাকা-১২১৬ -এই ঠিকানায় মোবাইল নম্বর উল্লেখ করে আবেদন পাঠাতে হবে।

 

তো বন্ধুরা আশা করি পোস্ট টি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর এরকম পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Shihab

নিজে যা জানি তা অন্যকে জানাতে ভালোবাসি আর্টিকেলের মাধ্যমে। বিভিন্ন ওয়েব সাইটে লেখালেখি করি.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button