Wednesday, November 30, 2022

বিকাশে অ্যাডমানি তে নিয়ে নিন ১৫০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক (অফার সীমিত)

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে বিকাশের দারুণ একটি ক্যাশব্যাক অফার এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

বিকাশ ক্যাশব্যাক অফার ২০২২

বিকাশে একের পর এক অ্যাড মানি বোনাস অফার আসছেই। গত কয়েক মাসে অনেক গুলো অফারের আওতায় বিকাশ তাদের গ্রাহকদের অ্যাড মানি করলে বিভিন্ন পরিমাণ অংকের টাকা বোনাস দিয়েছে। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন শর্তে এই বোনাসের পরিমাণ বিভিন্ন রকমের হয়েছে।

ক্রমাগত অ্যাড মানি অফার দেওয়ার কারণে বাইরে থেকে ধারণা করা যায় যে হয়তো এই অফার গুলোতে ভালই সাড়া পাচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল আর্থিক সেবা দাতা এই কোম্পানিটি। এই মুহূর্তে ব্যাংক থেকে অ্যাড মানিতে একাধিক অফার দিচ্ছে বিকাশ। এক্ষেত্রে ব্যাংক এবং অ্যাড মানির শর্তের পরিমাণে ভিন্নতা রয়েছে। পার্থক্য রয়েছে বোনাসের পরিমাণেও।

আপনি হয়তো বিকাশের ফ্রাইডে অফারটির কথা ইতোমধ্যেই শুনেছেন যেখানে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত শুক্রবারে ব্যাংক থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা অ্যাড মানি করলে ১০০ টাকা করে বোনাস দিচ্ছে বিকাশ। এই অফারটি বেশ ভালো পরিমাণে সাড়া তুলেছে। এই অফার সম্পর্কেও আমাদের ওয়েব সাইটে পোস্ট করা আছে চাইলে পড়তে পারেন।

আরো পড়ুনঃ বিকাশ ফ্রাইডে অ্যাড মানি ক্যাশব্যাক অফার

তবে আজকের পোস্টে আমরা যে অফারটি নিয়ে কথা বলব সেটি হচ্ছে ব্যাংক থেকে অ্যাড মানি করার ভিন্ন একটি অফার। ফ্রাইডে অফারে বোনাস আসতে দুই কর্মদিবস সময় লাগে আর এই পোস্টে যে অফারটির কথা বলব সেটিতে বোনাস আসতে কোন সময় লাগবে না (বিকাশের দাবি অনুযায়ী)। এটাকে বলা হচ্ছে ইনস্ট্যান্ট বোনাস, অর্থাৎ, সাথে সাথে বোনাস এর টাকা বিকাশ নাম্বারে চলে আসবে।

বিকাশের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুসারে এই অফারটি পহেলা ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছে যা মার্চ মাসের দুই তারিখ পর্যন্ত চলবে। তবে বিকাশ কর্তৃপক্ষ চাইলে এই সময়সীমা বাড়াতে কিংবা কমাতেও পারে। এবং অফারের যেকোনো কোন শর্ত বিকাশ কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পরিবর্তন করতে পারবে।

 

বিকাশ অফারের সম্পর্কে বিস্তারিত

এবার তাহলে জানা যাক অ্যাড মানির পরিমাণ এবং বোনাস এর পরিমাণ সম্পর্কে। শিরোনামে যেমনটি লিখেছি এটি একটি মোটামুটি বড় অংক বলা যায়, কারণ এই অফারের আওতায় নির্দিষ্ট কিছু ব্যাংকের ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবা ব্যবহার করে ৬০০০ টাকা বিকাশ নাম্বারে অ্যাড মানি করতে হবে।

অফারের মেয়াদ সীমার মধ্যে পাঁচবার এভাবে অফারটি নেওয়া যাবে। অর্থাৎ প্রতিবার ৬০০০ টাকা বিকাশে এভাবে অ্যাড মানি করলে প্রতিবার ৩০ টাকা করে পাঁচ বারে সর্বমোট ১৫০ টাকা বোনাস পাবেন। (৫ x ৩০ = ১৫০ টাকা)।

 

অফারের সম্পর্কে কিছু তথ্য

১. শুধুমাত্র ৬০০০ টাকা অ্যাড মানি করলেই বোনাস উপভোগ করা যাবে।

২. প্রতি অ্যাড মানি তে গ্রাহক ৩০ টাকা করে বোনাস পাবেন।

৩. ক্যাম্পেইন চলাকালীন একজন বিকাশ গ্রাহকের সর্বমোট বোনাস লিমিট ১৫০ টাকা।

৪. যে বিকাশ একাউন্টে অ্যাড মানি করা হবে, বোনাসও সেই একাউন্টেই প্রদান করা হবে।

৪. শুধুমাত্র নির্দিষ্ট ব্যাংকের iBanking-এর মাধ্যমে অ্যাড মানি করলেই বোনাস পাওয়া যাবে।

৫. অফারের মেয়াদ থাকবে ১ ফেব্রুয়ারি হতে ২ মার্চ, ২০২২ পর্যন্ত।

 

কোন ব্যাংক থেকে অ্যাড মানি করলে ক্যাশব্যাক পাবো

যেসব ব্যাংক থেকে বিকাশে অ্যাড মানি করলে অফারটি প্রযোজ্য সেগুলো নিচে দেওয়া হলোঃ

১. মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড
২. এসবিএসি ব্যাংক লিমিটেড
৩. ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড
৪. ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড
৫. সোশ্যাল ইসলামি ব্যাংক লিমিটেড
৬. ইউনিয়ন ব্যাংক লিমিটেড
৭. মধুমতি ব্যাংক লিমিটেড
৮. সীমান্ত ব্যাংক লিমিটেড
৯. এনআরবি ব্যাংক লিমিটেড
১০. ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড
১১. পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড
১২. এনআরবিসি ব্যাংক লিমিটেড
১৩. যমুনা ব্যাংক লিমিটেড
১৪. ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড
১৫. বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড
১৬. কমিউনিটি ব্যাংক লিমিটেড

 

অফারের শর্তাবলি

১. . প্রতারণা কিংবা অফারের অপব্যবহার চিহ্নিত হওয়া সাপেক্ষে বিকাশ কর্তৃপক্ষ যেকোনো একাউন্টকে এই অফারের গ্রহণের সুযোগ থেকে বিরত রাখার অধিকার সংরক্ষণ করে।

২. সচল একাউন্ট স্ট্যাটাস এবং পর্যাপ্ত ব্যালেন্স থাকা সাপেক্ষে যেকোনো বিকাশ গ্রাহক নিজ একাউন্ট থেকে পেমেন্ট করে অফারটি উপভোগ করতে পারবেন। যদি গ্রাহকের একাউন্ট স্ট্যাটাসের ইস্যুজনিত কারণে বোনাস বিতরণ ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে গ্রাহক বোনাস অফারটি পাবেন না।

৩. গ্রাহকের একাউন্ট স্ট্যাটাসের ইস্যুজনিত কারণ ছাড়া যদি অন্য কোনো অজানা/ অপ্রত্যাশিত কারণে বোনাস বিতরণ ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে ক্যাম্পেইন শেষ হওয়ার পর বিকাশ ২ মাসের মধ্যে ১বার বোনাস বিতরণের চেষ্টা করবে। সকল উপায়ই যদি ব্যর্থ হয়, তাহলে আর কোনো চেষ্টা করা হবে না এবং গ্রাহক বোনাস অফারের জন্য আর অন্তর্ভুক্ত বিবেচিত হবেন না।

৪. যেকোনো কারণে বোনাস দিতে দেরি হতে পারে। এমতাবস্থায় গ্রাহক বোনাস না পেয়ে থাকলে তারা বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারেন।

 

এই অফারটি সম্পর্কে আপনাদের আর কোনো প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্টে জানাতে পারেন অথবা এই লিংক ক্লিক করে বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করার উপায় জানতে পারেন। আপনি চাইলে বিকাশের অফিসিয়াল ওয়েবপেজে এই অফার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। এজন্য এখানে ক্লিক করুন।

তো বন্ধুরা আশা করি পোস্ট টি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর এরকম পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Shihab
Shihabhttps://skytube.ml
নিজে যা জানি তা অন্যকে জানাতে ভালোবাসি আর্টিকেলের মাধ্যমে। বিভিন্ন ওয়েব সাইটে লেখালেখি করি.
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here