সহজেই খুলে নিন হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সকলে অনেক ভালো আছেন। আপনাদের কে আমাদের এই সাইটে আমার পক্ষ থেকে জানাই স্বাগতম। আজকের পোস্ট এ আমি আপনাদের সাথে হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট কিভাবে খুলবেন এই বিষয় টি নিয়ে কথা বলবো। তো চলুন দেরি না করে পোস্ট টি শুরু করে দেওয়া যাক।

 

মেসেজিং এর কথাটি আসলেই সবার আগে এগিয়ে থাকবে হোয়াটসঅ্যাপ। অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস এর পাশা পাশি প্রায় সকল প্ল্যাটফর্মেই হোয়াটস অ্যাপ অনেক বেশি জনপ্রিয় একটি মেসেজিং এর অ্যাপ। অনেকটা বলতে পারেন ফেসবুক মেসেঞ্জারের মতো।

এটা ব্যবহার করা যেমনি সহজ তার পাশা পাশি আবার এটা সম্পূর্ণ ফ্রি অ্যাপ হওয়ায় এর রয়েছে অসংখ্য ব্যবহার কারী। আর যে কোনো প্ল্যাটফর্ম এ হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করা যায় বলেই সকল প্ল্যাট ফর্ম থেকেই সকল প্ল্যাটফর্মে মেসেজ পাঠানো সম্ভব হয়ে উঠে হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করার মাধ্যমে।

তাহলে চলুন আমরা জেনে নেই, যে কিভাবে কয়েকটি সহজ ধাপ অনুসরণ করে হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট খোলা যায়।

 

হোয়াটসঅ্যাপ কি

হোয়াটস অ্যাপ কে আপনাদের সাথে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়া অনেকটা অযুক্তিহীন। কেননা সবাই জানেন এর সম্পর্কে। তবুও সহজ ভাষায় বলতে গেলে হোয়াটস অ্যাপ আসলে কি তা বলতে গেলে বলা যায়, হোয়াটসঅ্যাপ হলো একটি ক্রস – প্ল্যাটফর্ম, ইন্সট্যান্ট মেসেজিং এর একটি অ্যাপ যা ব্যবহার করে বিনামূল্যেই আনলিমিটেড মেসেজ, অডিও, ভিডিও, ছবি ডকুমেন্ট, এমনকি লোকেশন ও শেয়ার করা যায়।

মোবাইল ডাটা কিংবা ওয়াইফাই কানেকশন আছে এমন যেকোনো ডিভাইস থেকেই হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করা যায়। পরিবার, বন্ধু অথবা সহকর্মীদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য হোয়াটস অ্যাপ ব্যাপক হারে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

আরো পড়ুনঃ   বিকাশ ফ্রাইডে অফারে ৩০০ টাকা পর্যন্ত বোনাস নেয়ার সুযোগ কেউ মিস করবেন না।

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারের ক্ষেত্রে টেক্সট মেসেজ আদান প্রদান করলে তেমন একটা ইন্টারনেট খরচ হয়না। অডিও, ভিডিও বা ছবি আদান-প্রদান করলে তবেই ইন্টারনেট খরচ হতে দেখা যায় হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে।

হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট খোলার নিয়ম
শুরুর দিকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করা সাইন-আপ এর প্রথম দুই বছর ফ্রি ছিলো ও পরের বছর থেকে প্রতি বছর ০.৯৯ ডলার প্রদান করতে হতো। তবে পরে ফেসবুক কিনে নেয় হোয়াটসঅ্যাপকে ও সম্পূর্ণরুপে ফ্রি করে দেওয়া হয় অ্যাপটি।

 

হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট খুলতে যা যা লাগবে

হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট খোলা অনেক সহজ। একটি হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট খুলতে যা যা লাগবেঃ

১. স্মার্টফোন বা যেকোনো মোবাইল ডিভাইস, যেমনঃ ট্যাবলেট কিংবা কম্পিউটার

২. মোবাইল ডাটা অথবা ওয়াইফাই কানেকশন

৩. ফোনে যথেষ্ট স্টোরেজ স্পেস ফাকা থাকা, কমপক্ষে ১৫০ এমবি পর্যন্ত যায়গা ফাকা থাকতে হবে।

৪. একটি ভ্যালিড মোবাইল নাম্বার।

এবার জানে নেওয়া যাক হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট কিভাবে খুলতে হয়। উল্লেখ্য যে একটি সিম একটি ব্যবহার করে মাত্র একটি হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট ই খোলা যাবে।

 

হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট খোলার নিয়ম

১. হোয়াটস অ্যাপ এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে চলে যান এবং নিজের ডিভাইসের জন্য হোয়াটস অ্যাপ ডাউনলোড করুন। কিংবা সরাসরি এন্ড্রয়েড ইউজার রা প্লে স্টোর থেকে হোয়াটস অ্যাপ ইন্সটল করে নিন।

২. হোয়াটস অ্যাপ এপ টিতে প্রবেশ করুন এবং “Agree & Continue” বাটন টি তে ক্লিক করুন।

৩. এরপর আপনার দেশের নাম্বার কোড সিলেক্ট করুন, যেমনঃ বাংলাদেশের কোড +৮৮০ । এবার যে নাম্বার ব্যবহার করে হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট খুলতে চান সেটি টাইপ করে দিন।

৪. এরপর প্রদত্ত নাম্বারে একটি এসএমএসে যাবে যাতে থাকবে একটি ৬ ডিজিটের পিন নাম্বার।

৫. সেই পিন নাম্বার নিযে থেকে ভেরিফাই হয়ে যাবে। তবে যদি অটোমেটিক ভেরিফাই না হয় তাহলে এসএমএস থেকে কোড হোয়াটস অ্যাপ এপ এ আপনি টাইপ করে দিন।

আরো পড়ুনঃ   মোবাইল ফোন আমাদের অজন্তেই যে সব ক্ষতি করে।

৬. আগে থেকেই যদি হোয়াটস অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে ব্যাকাপ রিস্টোর করার অপশন পেয়ে যাবেন। ব্যাকাপ রিস্টোর যদি করতে চান তাহলে “RESTORE” বাটন এ ক্লিক করুন, আর যদি ব্যাকাপ রিস্টোর করতে না চান তাহলে “Skip” বাটন এ ক্লিক করুন।

৭. এরপর হোয়াটস অ্যাপ এর আইডি এর জন্য নিজের নাম দিয়ে দিন।

৮. এবার চাইলেই হোয়াটস অ্যাপ এর প্রোফাইল ফটো সেট করতে পারবেন কিংবা চাইলে Skip ও করতে পারবেন।

উল্লেখিত প্রক্রিয়া গুলো যদি আপনারা সঠিক ভাবে অনুসরণ করেন তাহলে আপনার হোয়াটস অ্যাপ একাউন্ট সঠিক ভাবে সক্রিয় হয়ে যাবে।

[বিদ্রঃ এই পোস্ট একদম নতুনদের জন্য। আপনি আগে থেকে জেনে থাকলে স্কিপ করে দিন অথবা কোথাও যদি ভূল খুজে পান তাহলে সেটা ধরিয়ে দিন, ভূল আমারো হতে পারে, কেননা মানুষ মাত্রই ভূল।]

 

তো বন্ধুরা আশা করি পোস্ট টি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। ভালো লেগে থাকলে কিন্তু অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর এরকম পোস্ট পেতে প্রতিদিন ভিজিট করতে থাকুন আমাদের এই সাইট টি। আবার দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্ট এ। সে পর্যন্ত সকলে ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেয।

Please Share This Article

Leave a Comment